মন্তব্য একান্তই নিষ্প্রয়োজন

টেক্সাস রাজ্যের হিউস্টন-এ ২০১৫-র উত্তর আমেরিকা বঙ্গসম্মেলন-এ যোগ দিতে গেছিলাম গত সপ্তাহের শেষে। সেখানে একটা অভূতপূর্ব অভিজ্ঞতা হলো, সেটা সবার সঙ্গে ভাগ না করে নিলে ঠিক পোষাচ্ছে না। রবিবার (গতকাল, সম্মেলন-এর শেষ দিন) দুপুরবেলা মধ্যাহ্নভোজের লাইন-এ দাঁড়িয়ে আছি, হাতে ট্রে, তার ওপর কাগজের প্লেট – সামনে পিন-পিন করে জ্বলা অগ্নিশিখার ওপরে রাখা অ্যাল-ফয়েল-এর ডিব্বায় রান্না করা বিভিন্ন পদ, লাইন চলতে চলতে সামনে দাঁড়িয়ে লোকে হাতা দিয়ে দিয়ে তুলে নিচ্ছে। আমিও তাই করছি, তখনি আমার ঠিক পিছনে দাঁড়ানো দু’জন ষাটোর্দ্ধ পক্ককেশ ভদ্রলোকের কথোপকথন কানে এল।

বিস্তারিত পড়ুন

মন্দিরে মম কে?

আজকাল কাজের জ্বালায় লেখার একটুকু সময় পাইনা। মাঝে মধ্যে যদিবা বন্ধু-বান্ধবের লেখাপত্র একটু চোখ বোলানোর সময় করে নিই, কিন্তু নিজে বসে লেখা? হায়। যাকগে, সে হতাশার মাঝ থেকেও চেগে উঠলাম একবার কুন্তলার অনুপ্রেরণায়… অবশ্য তার বিন্দুবিসর্গও কুন্তলার জানার কথা নয়। না, ভুল হল; এতে কুন্তলার কোনো হাত নেই। অনুপ্রেরণাটা এল কুন্তলার ভক্ত পাঠিকা/পাঠক-কূলের একজনের একটা কমেন্ট থেকে। একটু ফিস্‌ফিস্‌ করেই বলে ফেলি, কেমন?

বিস্তারিত পড়ুন